কিভাবের মস্তিষ্কের স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি করবেন?জেনে নিন।

brain,ব্রেইন,কিভাবে মস্তিক,বুদ্ধি,banglalabs

আমাদের সবার মস্তিষ্কের গঠন এক নয়। তাই কেউ খুব সহজেই যেকোনো তথ্য বা কোন কিছু মনে রাখতে পারে আবার অনেকেই খুব তারাতারি ভুলে যায়। তাই বলে কারো মেধা কম বা বেশি নয়! তবে কয়েকটি সহজ উপায়ে আপনিও বাড়াতে পারেন আপনার স্মৃতি শক্তির ক্ষমতা।আসুন উপায়গুলো জেনে নেই।

১.ইতিবাচক চিন্তাভাবনা করুনঃ
সব সময় মনে মনে ইতিবাচক চিন্তাভাবনা করুন এবং নেতিবাচক চিন্তা ভাবনা পরিহার করুন। কারন আপনি যখন কোন বিশেষ কিছু নিয়ে চিন্তা বা গবেষণা করেন তখন সেটা নিয়ে যতই ইতিবাচক ভাবনা রাখবেন ততই আপনার জন্য সুফল বয়ে আনবে অথবা আপনার হিতের বিপরিত হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

২.ব্রেইন গেম খেলুনঃ
প্রচুর ব্রেইন গেম খেলুন,কারন ব্রেইন গেম আপনার ব্রেইনের ব্যায়ামের মত কাজ করবে। এতে করে আপনার স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করবে। তার জন্য দাবা খেলুন, ক্রসওয়ার্ড খেলুন, সুডোকোড খেলুন। এছাড়া অনলাইনে অনেক ব্রেইন গেম পাবেন।

৩.অন্যকে শেখানঃ
মনে করুন আপনি কোন বিষয়ে মোটামোটি পারদর্শিতা অর্জন করেছেন। এখন আপনি এই বিষয়টা নিয়ে কারো সাথে আলাপ-আলোচনা করতে পারেন, বা কাউকে শিখাতে পারেন। এতে করে আপনার ব্রেইনের চর্চা হবে। আরেকজনকে শিখানোর মাধ্যমে আপনার নতুন নতুন আইডিয়া শেয়ার করতে পারবেন। ফলে আপনার স্মৃতিশক্তি আরো স্থিতিশিলতা বৃদ্ধি পাবে।

৪.একঘেয়েমি কাজ থেকে বিরত থাকুনঃ
প্রতিনিয়ত একঘেয়েমি কাজ আপনার মস্তিষ্কের স্মৃতিশক্তি কমিয়ে দেয়। সম্প্রতি দেখা গেছে নতুন নতুন কর্মপদ্ধতি স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে সহায়তা করে থাকে। তাই সর্বদা নতুন নতুন পদ্ধতি অনুসরন করবেন।

৫.গান শুনুনঃ
স্মৃতিশক্তি ধারনের সাথে গান শুনার এ অদ্ভুত সম্পর্ক রয়েছে। গবেষনার মাধ্যমে জানাগেছে স্মৃতি ধারনের জন্য গানের ব্যবহার একটি অনন্য পদ্ধতি। তাই বিশেষ কোনো মুহুর্তে আপনি যে গান গুলো শুনবেন তা পরক্ষনে ঐ গানটি শুনার ফলে আপনার ঐসময়ের ঘটনা গুলো মনে পরে যাবে।

৬.মাল্টিটাস্ক বাদ দিনঃ
আমরা অনেক সময় নিজেদের দক্ষতা প্রমানের জন্য একই সাথে অনেক গুলো কাজ করার চেষ্টা করে থাকি, বস্তুত এটি উচিত নয়। কয়েকটি গবেষনার মাধ্যমে দেখা গেছে একই সঙ্গে অনেক গুলো কাজ করার ফলে মনোযোগের বিক্ষিপ্ততা দেখা দিয়ে থাকে।

৭.পুষ্টিকর খাবার খানঃ
মস্তিষ্কের কর্মদক্ষতা বাড়ানোর জন্য পুষ্টিকর খাবর খাওয়া আবশ্যক। প্রতিদিন প্রচুর পরিমানে ভিটামিন জাতীয় খাবার খেতে হবে। নিয়মিত তাজা ফলমূল, শাকসবজি, মাছ, মাংস, দুধ, ডিম, প্রোটিন ও মিনারেল সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। প্রচুর পরিমানে বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে, বিশুদ্ধ পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে।

৮.রাতে শোয়ার আগে করণীয়ঃ
স্মৃতিশক্তি ধরে রাখতে ও সুস্থ থাকতে হলে অবশ্যই পর্যাপ্ত ঘুমের প্রয়োজন, সাথে আপনি সারাদিন কি করেছেন তা এবার কল্পনা করতে থাকুন। আপনার এই কয়েক মিনিটের চিন্তা ভাবনা স্মৃতিশক্তিকে দীর্ঘ মেয়াদি করতে সহায়তা করবে। আজ সারাদিন যে পড়া গুলো শিখেছেন সে গুলো একটু মনে মনে ‘রিভিশন’ দিন।
এইভাবে আপনার স্মৃতিশক্তিকে দীর্ঘমেয়াদি করে তুলতে পারেন।

আমাদের লেখাটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। আপনার অভিমত বা লেখা সাইটে পাবলিশ করতে চাইলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *